“এই সখীপুর এমন চাইনা”


admin প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৯, ২০২৩, ৯:০৩ পূর্বাহ্ন /
“এই সখীপুর এমন চাইনা”

“এই সখীপুর এমন চাইনা”

মোজাম্মেল হক সজল

খুন, অপহরণ, ধর্ষণ, ছিনতাই ও মারামারি বেড়েই চলছে প্রিয় সখীপুরে। আমরা এমন সখীপুর চাইনা। যেখানে শিশুরা স্কুল থেকে একা বাড়ির পথে গুম হয়ে যায়। অতঃপর ঝোপের আড়াল থেকে তুলে নিতে হয় তার লাশ। ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে রাতের বেলায় বাড়ি ফিরতে পারবেনা, পথের মধ্যে খুন হয়ে পরে থাকতে হয় রাস্তায়। স্বামী-স্ত্রী বাড়ির বাহিরে এসে ঘুরা ফেরা করতে পারবেনা, পথের মধ্যে হতে হবে নরপশু হাতে ধর্ষণের শিকার। বাজার করে অটো ভ্যান নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারবেনা, পথের মধ্যে ছিনতাই কারীর কবলে পড়বে মা-বোন। ফুটবল খেলার মাঠ জুড়ে আতঙ্ক, ঠুনকো বিষয় নিয়ে মারামারি, পেশি শক্তির দাম্বিকতায়। দেশীয় লাঠি সোটার শোডাউন আরও অনেক অনেক কিছু। এসব দেখে শুনে আফসোস আর দীর্ঘ শ্বাসে ভারি হয়ে যায় বুক। আমরা দারুণ এক নষ্ট সময় অতিক্রম করছি।
কৃষিবিদ শওকত মোমেন শাহজাহান স্যার নিশ্চয়ই এমন সখীপুর নিয়ে জনতার মঞ্চে উচ্চারণ করেন নাই “সখীপুর আমার গৌরব, আমার শত জনমের অহঙ্কার”। গোটা কয়েক কুলাঙ্গার, বিকৃত রুচির মানুষ রূপী অসভ্য হায়েনার কাছে বিলিন হতে দেওয়া যাবেনা একাত্তর পরবর্তী সখীপুরের রৌদ্রকরোজ্জ্বল ইতিহাস আর ঐতিহ্যের গৌরব।
আমরা আর নৃশংস ভাবে হারাতে চাইনা সামিয়ার মতো নিষ্পাপ শিশুর প্রাণ। রাতের আঁধারে যেন আর খুন না হয় মজনুর মতো কোন কৃষক, শাহজালালের মতো উদ্যমী ব্যবসায়ী। নিখোঁজ হয়ে যেন লাশ হতে না হয় আলমিনার মতো কিশোরীর। আর যেন ধর্ষণের শিকার না হয় কোন গৃহবধূ।
সখীপুর চালানোর যন্ত্রশক্তি গুলো হতে হবে আরও চৌকস, বুদ্ধিদীপ্ত, আরও মানবিক, উন্নত চেতনাশীল ও স্পষ্ট কঠিন।
বুকের ভেতর থেকে বারংবার উচ্চারিত হচ্ছে চর্যাপদ গবেষক প্রফেসর আলীম মাহমুদ স্যারের লেখা গণসঙ্গীতের কয়েকটি লাইন-
“কোথায় বন্ধু যেতে চাও বলো
কোথায় নিবে ঠিকানা
কোথায় ভেবেছো শান্তির নীড়
করবে তুমি রচনা
যেখানেই হোক এখানে কিন্ত নয়
এখানে এখন চলছে দেখোনা
দারুণ অবক্ষয় “
আমাদের প্রত্যকের হতে হবে আরও দায়িত্বশীল, সমাজ সচেতন। পরিবারের প্রতি হতে হবে আরও যত্ম শীল। প্রতিরোধ করতে হবে বখাটেপনা। বন্ধ করতে হবে মাদক।
সখীপুরের সমাজ, সংস্কৃতি, রাজনীতির মেলবন্ধন হোক আত্মার বন্ধনে আবদ্ধ।

০৮.০৯.২০২৩