আবারও পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা করতে পারে উত্তর কোরিয়া: যুক্তরাষ্ট্র


admin প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৫, ২০২৩, ২:২৩ অপরাহ্ন /
আবারও পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা করতে পারে উত্তর কোরিয়া: যুক্তরাষ্ট্র

২০১৭ সালের পর উত্তর কোরিয়া আবারও পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাতে পারে বলে আশংকার কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এদিকে কোরীয় উপদ্বীপে দুদিনের নৌমহড়া চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া। সিউল জানিয়েছে, পিয়ংইয়ং-এর সম্ভাব্য হামলা মোকাবিলায় এ মহড়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানায়, গত সপ্তাহে প্রথমবারের মতো উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্র উৎপাদন কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন।

 এ সময় বেশ কয়েকটি পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পরিদর্শন করতে দেখা যায় তাকে। মঙ্গলবার ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ২০১৭ সালের পর নতুন করে আবারও পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাতে পারে পিয়ংইয়ং।

এদিকে দক্ষিণ কোরিয়ার জেজু দ্বীপের কাছে আন্তর্জাতিক জলসীমায় যৌথ নৌমহড়া চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়া। মঙ্গলবার শুরু হয় দুদিনের এ নৌমহড়া। এর মাধ্যমে সাবমেরিন থেকে হামলা মোকাবিলার বিভিন্ন কৌশল রপ্ত করছেন এ তিন দেশের নাবিকরা।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এ মহড়ার মাধ্যমে উত্তর কোরিয়ার সাবমেরিন হামলা শনাক্ত এবং ধ্বংস করতে বিভিন্ন কৌশল নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: উত্তর কোরিয়া থেকে খাদ্যের বিনিময়ে অস্ত্র কিনতে চায় রাশিয়া

দক্ষিণ কোরিয়ার নৌবাহিনী যুক্তরাষ্ট্র এবং জাপানের নৌবাহিনীর সঙ্গে শত্রুপক্ষের সাবমেরিন ধ্বংস করা এবং উদ্ধার অভিযান পরিচালনার নানা কৌশলের পরীক্ষা চালিয়েছে। সমুদ্রে উত্তর কোরিয়ার সব ধরনের হামলা মোকাবিলায় এ মহড়া নাবিকদের আরও ‌দক্ষ করে তুলবে।

নৌমহড়ায় অংশ নিয়েছে মার্কিন বিমানবাহীর রণতরী ‘ইউএসএস নিমিটজ’। পরমাণু শক্তিচালিত এ রণতরীটিতে মহাকাশ থেকে সমুদ্রের তলদেশ পর্যন্ত যেকোনো জায়গার তথ্য সংগ্রহের সক্ষমতা রয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন কর্তৃপক্ষ।

গেলো বছরের সেপ্টেম্বরেও সাবমেরিন ধ্বংসে একই ধরনের নৌমহড়া চালিয়েছিল এ তিন মিত্রদেশ। এর জবাবে উত্তর কোরিয়া মাঝারি পাল্লার হোয়াসং-টুয়েলভ ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায়।